তালিকাভুক্ত হওয়ার সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছে সাউথ বাংলা অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স (এসবিএসি) ব্যাংক লিমিটেড। আগামী বুধবার থেকে পুঁজিবাজারে লেনদেন শুরু হবে প্রতিষ্ঠানটির। এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) এসবিএসি ব্যাংক (ঝইঅঈ ইধহশ) কোড নম্বরে লেনদেন শুরু হবে। ক্যাটাগরি হবে ‘এন’। ডিএসই সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে ডিএসইর সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, বুধবার যদি ব্যাংক বন্ধ না থাকে তবে এসবিএসি ব্যাংকের লেনদেন শুরু হবে। আর যদি লেনদেন বন্ধ থাকে তবে পুঁজিবাজারেও লেনদেন বন্ধ থাকবে। ফলে বৃহস্পতিবার প্রতিষ্ঠানটির লেনদেন শুরু হবে। উল্লেখ্য, করোনার সংক্রমণ রোধে সরকার মঙ্গলবার পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ চালু রেখেছে। ১১ আগস্ট থেকে শিথিল হচ্ছে বিধিনিষেধ। ফলে বুধবার ব্যাংকের লেনদেন বন্ধ রাখা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন একাধিক বাংককার।

গত ৫ জুলাই থেকে ১২ জুলাই পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির আইপিওতে আবদেন গ্রহণ করা হয়। নিয়ম অনুসারে, কোম্পানির আইপিওতে সাধারণ বিনিয়োগকারী প্রতি ১০ হাজার টাকায় ৬৬টি শেয়ার পেয়েছেন। প্রবাসী বিনিয়োগকারী প্রতি ১০ হাজার টাকায় ১০৮ শেয়ার পেয়েছেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীরা প্রতি ১০ হাজার টাকার বিপরীতে ৭৬টি করে শেয়ার বরাদ্দ পেয়েছেন।

১০ কোটি সাধারণ শেয়ার ইস্যু করে পুঁজিবাজার থেকে ১০০ কোটি টাকা উত্তোলন করেছে সাউথ বাংলা ব্যাংক। আইপিওর অর্থ দিয়ে ব্যাংকটি সরকারি সিকিউরিটিজ ক্রয় এবং আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করবে।

কোম্পানিটির ২০২০ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া নেট অ্যাসেট ভ্যালু হয়েছে ১৩ দশমিক ১৮ টাকা। আর ওই বছরের ৯ মাসে ইপিএস হয়েছে ৯৪ পয়সা। যা বিগত ৫ বছরের ভারিত গড় হারে হয়েছে ১ দশমিক ২৪ টাকা।

আইপিওতে কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট। স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্তির পূর্বে ব্যাংকটি কোনো প্রকার লভ্যাংশ ঘোষণা, অনুমোদন ও বিতরণ করতে পারবে না।

গত ৯ মে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৭৭৩তম সভায় কোম্পানিটিকে বাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের জন্য আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়।

পূর্ববর্তী নিবন্ধনওগাঁর স্থায়ী বাসিন্দাদের জন্য সরকারি চাকরি
পরবর্তী নিবন্ধঅস্ট্রেলিয়াকে সর্বনিম্ন ৬২ রানের রেকর্ড ‘উপহার’ দিল বাংলাদেশ